প্রমাণসহ দেখুন IBS ভালো হয়

তাহলে দেরী কেন ঝটপট ভিটিওটি দেখে আসুন

আমাদের সেবা সর্ম্পকে সাম্মানিত কাস্টমারদের ফিডব্যাক

FARUK HOSSAIN
FARUK HOSSAIN
BOGURA
Read More
স্যার আপনাকে পেলে আমি আপনার পায়ে সেলাস করতাম।কেননা দশ বছরে যে পরিমান টাকার ঔষধ আমি খেয়েছি তা দিয়ে একটা বাড়ি বানাতে পারতাম।আপনার ভিডিও দেখে মাত্র দশ দিনে আমি অনেক ভালো আছি।যতদিন যাচ্ছে আমি আরো বেশি ভালো হচ্ছি।
RASEL MIA
RASEL MIA
Read More
আমি অবিবাহিত স্যার আপনাকে ফল করে গাইড লাইন ফল করে চলছে ৪৫ দিন থেকে। আলহামদুলিল্লাহ অনেক সুস্থ আছি
IImam Hossain
IImam Hossain
Read More
আলহামদুলিল্লাহ। আপনার মত মানুষের সমাজের বড়ই প্রয়োজন। আল্লাহ আপনার সহায় হোন❤️🌺❤️ভাইজান আগের চাইতে Better feel করছি। আলহামদুলিল্লাহ।আমি মন থেকে খোদা মেহেরবানের নিকট আপনার পরিবারের বরকত কামনা করছি।
Amina Afrose
Amina Afrose
Read More
@aminaafrose7465 @aminaafrose7465 3 দিন আগে আমার আঠারো বছরের আইবিএস ডি। আমি মতিউর রহমান সারের চিকিৎসা য় বা গাইড লাইন মেনে ভালো হয়েছি। আসা করি সকল আইবিএস রুগিরা এদিক ওদিক না গিয়ে মতিউর সারের চিকিৎসা মানুন।ভালো হবেন কোটি ‌পারসেন।
USUF ALI
USUF ALI
Read More
Sir apner video dhekhe and apner dewya oisod khewe onekta valo bud korce Ondhokare Alor photo pewyese
Md Sabbir
Md Sabbir
Read More
আমিও অপারেশন করানোর প্রস্তুতি নিয়েছিলাম,কিন্তু করি নি। এখন আলহামদুলিল্লাহ স্যারের পরামর্শ নিয়ে অনেকটা ভালো আছি
Rj Masum
Rj Masum
Read More
আমি অত্যান্ত আনন্দিত আপনার মত একজন ডঃ পেয়ে আল্লাহ পাক আপনাকে দীর্ঘয়ু দান করুক এমনটাই আশা করি স্যার❤️❤️❤️❤️❤️❤️❤️❤️❤️❤️❤️❤️❤️
Raihan Rahi
Raihan Rahi
Read More
ভাই আমি একজন আইবি এস রোগী। আপনার কথামতো চলে আজকে আমি অনেকটাই সুস্থ হয়ে গেছি।আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ। আপনার এই রুটিন গুলো আমি চার মাস থেকে মেনে চলছি। আমি তিন বছর যাবত ভুগতেছিলাম।
Sumon
Sumon
Read More
আসসালামু আলাইকুম স্যার। কেমন আছেন? আমি ৩ মাস হলো আপনার পরামর্শে আই বি এস ডি এর ঔষধ খাচ্ছি আলহামদুলিল্লাহ এখন অনেকটাই সুস্থ। দোয়া করবেন স্যার।
Brads Lover
Brads Lover
Read More
আলাহামদুলিল্লাহ স্যার দেওয়া ঔষধে অনেকটা ভালো আছি। মাঝে মাঝে একটু টেনশন বেড়ে গেলে ভয় পেয়ে যায়।
Previous
Next

আমাদের চিকিৎসা নেওয়ার পর আইবিএস রোগীরা কি বলে রোগীর মুখ থেকে শুনুন

প্রশ্নের উপর ক্লিক করুন উত্তর পেয়ে যাবেন

উত্তর:আইবিএস ডি পাাওডারটির প্রতি ১০০গ্রামে সক্রিয় কেনুয়ায় রয়েছে এনার্জী  ১৬১১কেজে,প্রোটিন১০৬গ্রাম,ফ্যাট ৬গ্রাম,কার্বস ৬৮গ্রাম,এছাড়া ৯ ধরনের এমিনো এসিডসহ নানা উপকারী উপাদান।

উত্তর: পাতলা পায়খানা, আমাশয় বারবার টয়লেটে যাওয়া,ডায়রিয়া তাদের আইবিএস লক্ষণে ভীষণ উপকারী।হজম প্রক্রিয়া উন্নত করে।গুডব্যাক্টেরিয়া বৃদ্ধি করে। পেট ঠান্ডা রাখে।নতুন পুরাতন আমাশয় দুর করে।আলসার ‍নিরাময় করে।

উত্তর: আইবিএস সি পাাওডারটি প্রতি ১০০গ্রামে রয়েছে কেনুয়া,ত্রিফলা,জিরা,ধনিয়া,সেনালিফ ও বেলসুটসহ নানা উপকারী উপদান।

উত্তর:কোষ্ঠকাঠিন্য, পায়খানা ক্লিয়ার না হওয়া,আমাশয় তাদের আইবিএস লক্ষণে ভীষণ উপকারী।হজম প্রক্রিয়া উন্নত করে।গুডব্যাক্টেরিয়া বৃদ্ধি করে। পেট ঠান্ডা রাখে।নতুন পুরাতন আমাশয় দুর করে।আলসার ‍নিরাময় করে।

উত্তর:আমরা আইবিএস এর চিকিৎসা দিয়ে থাকি।পাশাপাশি আইবিডি,আলসার,পাইলস,অর্শ,ফেস্টুলা,নাকের পলিপাস এর চিকিৎসা দিয়ে থাকি।

উত্তর:আইবিএস ডি পাওডার,আইবিএস সি পাওডার,গ্যাস্টোকিট পাওডার,আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার,শরবতে সিড,চিয়াসিড,পিংক সল্ট ইত্যাদি।

উত্তর:হ্যা দেওয়া হয়।আপনি প্যাকেজ ছাড়াও শুধু মাত্র একটি প্রডাক্ট অর্ডার করতে পারবেন।

উত্তর:আইবিএস ডি প্যাকেজে আইবিএস ডি পাওডার এবংআপনার সমস্যা বিবেচনা করে আরো দুই থেকে ৩টি প্রডাক্ট দে্ওয়া হয়।

উত্তর:আইবিএস ‍সি প্যাকেজে আইবিএস সি পাওডার এবংআপনার সমস্যা কথা বিবেচনা করে আরো ২-৩টি প্রডাক্ট থাকবে।

উত্তর:আইবিএস এম তথা   কষা ও ডায়রিয়া উভয়টি থাকে তাদের জন্য আইবিএস ডি পাওডার,আইবিএস সি পাওডার এবং আরো ১-২টি প্রডাক্ট আপনার সমস্যা অনুযায়ী দেওয়া হবে।

উত্তর:আপনি ঠিক কথা বলেছেন ,অনলাইনে অনেকে আইবিএস প্রডাক্ট বিক্রি করছে তাদের সাথে আমাদের পার্থক্য হচ্ছে,আমরা আপনাদের নাম,সমস্যা আমাদের রেজিস্টার খাতায় রিতিমত লিখি এবং নজরদ্বারি করি । সাথে আপনার সমস্য়া অনুযায়ী খাদ্য তালিকা প্রস্তুত করে দিই।প্রতিটি আইবিএস রোগী সরাসরি ডাক্তারের সাথে কথা বলার  অনুমতি দেওয়া হয় ।প্রতিটি আইবএস রোগীকে আমরা হোয়াটসএ্যাপে কানেক্ট করে থাকি। যাতে রোগীরা দুরে থেকেও শারীরিক যে কোন সমস্যা হলে কল বা ম্যাসেজ ,ভয়েস এর মাধ্যামে সমাধান পেতে পারে।

উত্তর:প্যাকেজের প্রথম সুবিধা হলো,আপনার আইবিএস এর সাথে নাকে পলিপাস,পায়ুপথের যে কোন সমস্যা থাকলে ফ্রি মেডিসিন দেওয়া হয়।অতিরিক্ত টাকা নেওয়া হয় না।

✅✅নিউ গাইডলাইন✅✅
IBS.IBD.ODS রোগীদের প্রথম ৩মাসের গাইড লাইন(২য় সংস্কারন) জানুয়ারী ২০২৪ইং

✅✅যারা লাখ লাখ টাকা IBS,IBD আলসার রোগের পিছনে নষ্ট করছেন তাদের জন্য নিন্মের নিউ গাইডলাইনটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। মাত্র ৭দিনে রেজাল্ট পাবেন ইনশাআল্লাহ।

✅আমরা সেই বিষয়টি তুলে ধরার চেস্টা করেছি যেগুলো প্রাক্টি্ক্যাল রেজাল্ট পেয়েছি।তবে ক্ষেত্রভেদে কিছু কিছু বিষয় পরিবর্তন পরিবর্ধন হতে পারে।
আইবিএস অর্থাৎ যাদের পেটের বিভিন্ন সমস্যা রয়েছে।ডাক্তার বাবুর কাছে গেলে সকল পরীক্ষা করার পরও রোগ ধরা পড়ে না অথচ পেটের ভিতরে জটিল কিছু অনুভুত হচ্ছে তাকেই আমরা আইবিএস তথা(Irritable Bowel Syndrome)বিরক্তিকর পেটের সমস্যা বলছি।

✅✅IBS(Irritable Bowel Syndrome)বিরক্তিকর পেটের সমস্যার প্রথমিক লক্ষণঃ-

➡️রোগীর পাতলা পায়খানা বা কষা পায়খানা দেখা দিতে পারে।
➡️পেট ভুটভাট, পেট ফাঁপা, ফুলে যেতে পারে।
➡️পেটে প্রচুর পরিমানে গ্যাস হয়।
➡️খাবারের পর পেট মুচোড় দিয়ে বাতরুম যাওয়া লাগতে পারে।
➡️প্রচুর পরিমানে সাদা সাদা থকথলে আম যেতে পারে।
➡️কারো ফেনা ফেনা যায়।কারো খাবারের পর পেট ব্যথা করে।
➡️কারো কারো আবার খালি পেট হলেই পেটে চিনচিন,ঘিনঘিন অসহ্যকর ব্যথা করে।
➡️কারো ক্ষেত্রে রক্ত আমাশা বা বিজল দেখা যেতে পারে।
➡️কোন খাবার একদম হজম হতে চায় না এমনকি পানি,ক্যাপসুলের আবরণও অনেকের হজম হয় না।

✅✅বিঃদ্র ঃ-এই অবস্থায় অনেকে গ্যাস্টিকের🚫 নিয়মিত ঔষধ খেয়ে খেয়ে পাকস্থলীর হাইডোক্লোরিক এসিড নষ্ট করে দেয়। অপরদিকে মুড়িমুড়কির মত এন্টিবায়েটিক 🚫খেয়ে কোলনের গুড ব্যাকটেরিয়াও কমতে থাকে🚫একসময় কোন ঔষধে কাজ করে না।কারো ক্ষেত্রে আলসার দেখা দেয়।কারো কারো ক্যনসার দেখা দেয়।

✅✅আইবিএস রোগীদের মারাত্মক অবস্থা ঃ-
➡️অবিবাহিতরা বিয়ে করার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে।
➡️বিবাহিতদের যৌন ক্ষমতা কমে যায়।
➡️মেজাজ অলটাইম খিটমিটে থাকে।
➡️কাজের প্রতি অনিহা ।
➡️কারো অধীনে চাকুরী করার মানসিকতা থাকে না।
➡️একটুতেই মেজাজ গরম হয়ে যাবার কারনে পরিবারে অশান্তি বিরাজ করে।
➡️সবকিছু পেয়েও যেন পৃথিবীতে নিজেকে অসহায় মনে হয়।
➡️অনেকে কর্ম হারায় বিদেশে থাকতে পারে না।
➡️দীর্ঘদিন এই রোগে ভুগলে নার্ভের সমস্যা হয়
➡️কোমরে ব্যথা অনুভত হয়।সাথে শরীরে বাথ্যা করে।
➡️কারো ক্ষেত্রে মাসে ২/৩বার পাতলা পায়খানা যেতে পারে।এটা দিনে ৮/১০বারও হতে পারে।

✅✅IBS.IBD.ODSআলসার,অর্শ,পাইলস এবং ফেস্টুলা রোগীদের জন্য ১ থেকে ১৮নং পর্যন্ত পরামর্শঃ-

✅১নিয়মিত সালাত আদায় ও কুরআন পড়বেন।
✅২.টেনশন মুক্ত থাকবেন।
✅৩.ফিল্টার বা ভালো ভাবে একবার পানি ফুটিয়ে ঠান্ডা করে পানি পান করবেন।
✅৪.শুকনা মরিচ বা গুড়ো মরিচ পরিহার করবেন।
✅৫.সবার কথা বাদ দিন, আপনি ভালো হবেন এটা মনে রাখবেন।
✅৬.খাবারের সময় পেটের তিনভাগের এক ভাগ খাবেন।
✅৭.খাবারের ৪০মিনিট আগে অথবা পরে পানি পান করুন।
✅৮.আমাদের দেখানো ব্যয়াম নিয়মিত করুন। সকালে খালিপেটে ৩০মিনেট বিকেল বা রাতে ৩০মিনিট সাধ্যমত জোরে জোরে হাটুন,দৌড়ান সাথে শ্বাসের ব্যায়াম করুন।
✅৯.খাবারের পর ২০মিনিট হালকাভাবে হাঁটুন।
✅১০.রাত্রে ঘুমানোর ৩/৪ঘন্টা আগেই খাবার শেষ করুন এবং খাবারের ১-২ঘন্টা পর বা ইশা সলাত আদায় করে ঘুমানোর আগে ৩০মিনিট ব্যায়াম অবশ্যই করুন।
✅১১.ঘুমানোর সময় সপ্তাহে ২-৩দিন এক টুকরা আদা। আর বাকী ২-৩দিন কাচা হলুদ এক টুকরা চুষে খেতে খেতে ঘুমিয়ে যাবেন।
✅১২.ঘুমানোর সময় অবশ্যই কেমিক্যালমুক্ত পেষ্ট দিয়ে ব্রাশ করে ঘুমাতে যাবেন এবং ঘুম থেকে উঠে কুলি না করে এক গ্লাস বিশুদ্ধ পানি পান করবেন(ফিল্টারিং)
✅১৩.ক্ষিদে লাগলে হাতের কাছে মুড়ি/লাল চিড়া রাখুন ২/১মুড়ি/চিড়া খান(এক ঘন্টা পর পানি পান করুন)।বাড়ির তৈরী হলে বেটার হয়।
✅১৪.সপ্তাহে১-২দিন সকালের নাস্তা(সকাল১১টায়)এবংদুপুরের খাবার (সন্ধ্যা ৬টায়) সমস্যা না হলে গ্রহন করতে পারেন,এতে ভালো ফল পাবেন ইন-শা-আল্লাহ।
✅১৫.যাদের সমর্থ আছে তারা সপ্তাহে সোমবার ও বৃহস্প্রতিবার এবং প্রতি আরবী মাসের ১৩,১৪,১৫তারিখে সিয়াম রাখতে পারেন।যেটা আল্লাহর রাসুল (সাঃ)নিয়মিত রাখতেন।
✅১৬.প্রিবায়োটিকস ও প্রবায়োটিকস সম্মৃদ্ধ খাবার প্রতিদিন যে নিয়মে বলেছি ভিডিওতে সেভাবে গ্রহন করবেন।
✅১৭.প্রতিদিন শরীরের চামড়ায় শীতকালে ৩০মিনিট আর গরমকালে১৫মিনিট রোদ লাগাবেন।সকাল১১টা থেকে দুপুর ৩টার মধ্যে। যারা জব করেন আপনারাও চেষ্টা করবেন সাধ্যমত।
✅১৮.আধালিটার পানিতে এক চা চামচ জিরা দিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে পানিসহ জিরা বা শুধু পানিটুকু ছেকে সকালে খালিপেটে খাবেন(১মাস)

✅✅IBS D তথা ডায়রিয়া পাতলা পায়খানা জনিত সমস্যার জন্য পরামর্শ(১-১৮ নং) এর পাশাপাশি ফলো করুন)
✅১.প্রতিদিন (ওর স্যলাইন)১টি,আধালিটার বিশুদ্ধ পানিসহ অর্গানিক কোকোয়া পাওডার কুয়াটার চা চামচ পরিমান মিশিয়ে প্রতিদিন দুপুর ১২-৫টার মাঝে পান করুন১মাস
✅২.সকালের নাস্তাঃ- রাত্রে সাদা চাউলের ভাত (১০-১২ঘন্টা)বিশুদ্ধ পানিতে পরিস্কারন পাত্রে ভিজিয়ে রেখে সকালে পানিসহ বিটরুট ভাজি,পেপে কলা বিভিন্ন রকম সবজি,তরকারি যেগুলো সুট করে সেগুলো দিয়ে পান্তা ভাত পিয়াজসহ মজা করে খাবেন(৩মাস)
✅৩.দুপুরে খাবারঃ- প্রথমে যে তরকারি বা সবজিগুলো আপনার সহ্য হয় সেগুলো ভালোভাবে চিবিয়ে চিবিয়ে খাবেন।এরপর ১প্লেট গরম আলোচাউল বা সাদা চাউলের ভাত খান।
✅৪.রাত্রের খাবারঃ-প্রথমে যে তরকারি বা সবজিগুলো আপনার সহ্য হয় সেগুলো ভালোভাবে চিবিয়ে চিবিয়ে খান।এর পর মাগরিব পরেই ঘুমানোর ৩/৪ঘন্টা আগে সাদা চাউলের বা আলোচাউলের গরম ভাত খাবেন ১প্লেট।
✅৫.কচিডাব প্রতিদিন সম্ভব হলে ১টি না পারলে১দিন পর পর বা ২দিন পরপর একটি করে দিনের বেলা খাবেন(৩মাস)।
✅৬.একটেরিয়া ক্যাপসুল ৪বিলিয়ন সকাল-রাত খাবারের ২০মিনিট আগে ফ্রিজে রেখে খাবেন (১মাস বা প্রয়োজনমত)
✅৭.সাদা ভাতের মাড় হিমালয় পিং সল্ট মিশ্রিত করে সপ্তাহে ২-৩দিন গরম ভাতের সাথে খাবেন।
✅৮.কলা,ডুমুর,লাউ,চালকুমড়ো,খাল-বিল-নদী-সামুদ্রিক মাছ ,দেশি মুরগীর মাংস,দেশি মুরগীর ডিম খাবেন।

✅✅IBS C,ODS তথা কোষ্ঠকাঠিন্য,বাধাগ্রস্থ মল ত্যাগের জন্য পরামর্শ(১-১৮নং) এর পাশাপাশি ফলো করুন)

✅১.শাহী হালিম বীজ +ফ্লাকসিড বীজ+তুলসি বীজ +চিয়া বীজ +ইসবগুল বীজ+তকমাবীজ+ব্লাককুমিন বীজ সমপরিমাণ একত্রে করে ২চা চামচ এক গ্লাস পানিতে ৪০মিনিট ভিজিয়ে রেখে খাবেন খাবারের পর দিনে ১-৩বার(প্রয়োজনমত)
✅২.ত্রিফলা ১টি করে ভিজিয়ে রেখে সকালে খালিপেটে সপ্তাহে ২-৩দিন খাবেন।
✅৩.এলাচ,দারুচিনি,লবঙ্গ ২টি করে ১গ্লাস পানিতে সকালে ভিজিয়ে রেখে সপ্তাহে ২-৩দিন বিকেলে খাবেন।
✅৪.বেলের শরবত একগ্লাস করে ১দিন পর পর খাবেন
✅৫.পর্যাপ্ত পরিমান ২টাইম সালাত খাবেন।
✅৬.পাকা পেঁপে ও কাচা পেঁপের তরকারি অন্যান্য সবজির সাথে রাখবেন এবং খাল-বিল-নদী-সামুদ্রিক মাছ ,দেশি মুরগীর মাংস,দেশি মুরগীর ডিম খাবেন।
✅৭.চালকুমড়ো যার উপরে সাদা লিয়ার পড়ে যার ওজন ২কেজির উপরে এরুপ ১০০-১৫০গ্রাম উপরের লিয়ার ফেলে কুচিকুচি করে কেটে ব্লিন্ডার করে শুধু পানিটুকু ছেকে সকালে খালিপেটে ৭-১০দিন বা প্রয়োজনমত খাবেন।বাকীটুকু ফ্রীজে নরমালে রেখে পরের দিনগুলোতে পান করতে পারবেন।
✅৮.সকালের নাস্তাঃ- রাত্রে সাদা চাউলের ভাত (১০-১২ঘন্টা)বিশুদ্ধ পানিতে পরিস্কারন পাত্রে ভিজিয়ে রেখে সকালে পানিসহ বিটরুট ভাজি,পেপে কলা বিভিন্ন রকম সবজি,তরকারি যেগুলো সুট করে সেগুলো দিয়ে পান্তা ভাত পিয়াজসহ মজা করে খাবেন(৩মাস)
✅৯.দুপুরের খাবারঃ- প্রথমে যে তরকারি বা সবজিগুলো আপনার সহ্য হয় সেগুলো ভালোভাবে চিবিয়ে চিবিয়ে খাবেন।এরপর ১প্লেট গরম লালচাউল বা সাদা চাউলের ভাত খান।
✅১০.রাত্রের খাবারঃ-প্রথমে যে তরকারি বা সবজিগুলো আপনার সহ্য হয় সেগুলো ভালোভাবে চিবিয়ে চিবিয়ে খান।এর পর মাগরিব পরেই ঘুমানোর ৩/৪ঘন্টা আগে সাদা চাউলের বা লাল চাউলের গরম ভাত খাবেন ১প্লেট।

✅✅IBS M কখনো কষা কখনো পাতলা IBS এর গাইডলাইন।(১-১৮ নং এর পাশাপাশি ফলো করুন)

✅যাদের পায়খানার ঠিক থাকে না,এই কষা এই পাতলা,অবশ্যই আপনাকে একটু বাড়তি সতর্ক থাকবেন।কারন আপনি নিজে বুঝতে পারবেন কখন কিরূপ পেটের অবস্থা হতে পারে।সেভাবে আপনি নিজেকে মানিয়ে নিবেন।অর্থাৎ আইবিএস সি এর সময় আইবিএস সি এর গাইডলাইন, ডি এর সময় ডি এর গাইডলাইন মেনে চলবেন।সমস্যা হবে না ইনশাআল্লাহ।

✅✅IBD.গ্যাস্টিক আলসার,H.Pylori পজিটিভ হলে করনীয় (১-১৮নং) এর পাশাপাশি ফলো করুন)
আপনার এ ধরনের সমস্যা আছে কিনা,ঘরোয়া একটা টেষ্ট করে বের করতে পারবেন।লেবুর রস ও আপেল সিডার ভিনেগার ইউথ মাদার দুটো হতে বড় চামচের এক বড় চামচ করে একসাথে মিশ্রিত করে বাসিপেটে খাবেন।যদিন পেট জ্বালা,ব্যাধা,খারাপ লাগা শুরু হয় তাহলে বুঝবেন,আপনার পেটে আলসার,খত,H.Pylori খারাপ ব্যাকটেরিয়া বেশি আছে।

✅১.অর্গানিক টুরমারিক ইমিউন বুস্টার আধা চা চামচ,কালোজিরা আধা চা চামচ,রসুন ২কুয়া একত্রে ভর্তা করে খাঁটি শরিষা বা অলিভওয়েল তেল দিয়ে খাবেন।
✅২.সকল ধরনের সুগারিফুড(অতিরিক্ত ভাত,রুটি,মিষ্টি ফল,মুখে মিষ্টি লাগে এমন জিনিস কম খাবেন)
✅৩.আলসারের পাশাপাশি যদি আপনার পায়খানা পাতলা নরম ডায়রিয়া আমাশা যায় তাহলে আইবিএস ডি এর গাইডলাইন এবং কোষ্ঠকাঠিন্য হলে আইবিএস সি এর গাইডলাইন মেনে চলবেন।আর কখনো কষা কখনো পাতলা হলে আইবিএস এম এর গাইডলাইন মেনে চলবেন।
✅৪.নিয়মগুলোর পাশাপাশি ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ন্যাচারাল মেডিসিন গ্রহণ করবেন।
✅৫.সকল প্রকার চিনি বা চিনি জাতীয় খাবার পরিহার করবেন।
✅৬.খালিপায়ে মাটি বা ঘাসের উপর ৩০মিনিট অন্তত হাটবেন।
✅৭.মানসিক চাপ কমাবেন রিলাক্য থাকবেন
✅৮.ওমেগা৬খাবার বাদ দিয়ে ওমেগা৩ যুক্ত খাবার খাবেন।
✅৯.যষ্টিমধু ১চামচ করে সকাল -রাত পানির সাথে পান করবেন(প্রয়োজনমত)
✅১০.পাতা কপি জুস ১কাপ করে সকাল-রাত খালিপেটে খাবেন১৫-২২দিন।

❌যে খাবার গুলো খাবেন নাঃ-❌
✅১. গ্লুটেন্ট(গম,ভুট্টা বা এই থেকে তৈরী যেমন বিস্কুট,চানাচুর,পাউরুটি,সকল ধরণের অত্যধুনিক প্রসেসফুড বর্জন করুন ইত্যাদি)
✅২.ক্যাসিন তথা দুধ। তবে বকরীর দুধ ক্ষেতে পারবেন,তবে যে গাভী সবুজ ঘাস খেয়ে জীবনধারণ করে তার দুধ খেতে পারেন,তবে দুধ খাবার পর অন্য খাবার সেই বেলা খাবেন না।
✅৩.ভাজাপোড়া খাবার পরিহার করবেন।
✅৪.মশুর ডাল, নারিকেল ,আংগুর,বাদাম ইত্যাদি।
✅৫. গরু বা ছাগলের মাংস (তবে ৩মাস পর আস্তে আস্তে খেতে পারবেন ইনশাআল্লাহ)।
✅৬.শুকনা বা গুড়া মরিচের ভাজী বা ঝোল তরকারি
✅৭.ভারী খাবার পরিহার করুন (পরে এগুলো আস্তে আস্তে হজম ক্যপাসিটি ভালো হবার পর ক্ষেতে পারবেন)
✅৮.সুয়াবিন তেলসহ অন্যান্য সকল প্রকার কেমিক্যাল মিশ্রিত তেল দিয়ে রান্না করা সকল কিছু পরিহার করুন।(বাচতে হলে মানতে হবে)
✅৯.সকল প্রকার নেশাদার দ্রব্য,বিড়ি,সিকারেট,মদ-খাজা,আফিং ইত্যদি বর্জন করুন।
✅১০যৌন উত্তেজনামুলক অনটাইম সকল প্রকার মেডিসিন পরিহার করুন।কারণ আমরা লক্ষ্য করেছি অনটাইম মেডিসিন খেলেই আইবিএস রোগীর আমাশা বহুগুন বেড়ে যায়।অস্থিরত লাগে।সেক্ষেত্রে (MRibsLifestyle) যে পরামর্শ দিচ্ছে সেটি আস্থার সাথে গ্রহন করুন। আপনি ন্যচারালি ফ্যমিলিকে সুখ দিতে পারবেন(প্রমানিত) ইনশাআল্লাহ।

✅✅আইবিএস রোগীর ইফতারঃ-
খেজুর বা বিশুদ্ধ পানি দিয়ে ইফতার শুরু করুন। বা কচি ডাবের পানি অথবা ইসুবগুল ২চামচ ও তোকমা ২চামচ ২০মিনিট আগে ভিজিয়ে রেখে সেটা দিয়ে মাহে রমজানে ইফতার করবেন।তারপর কলা,১/২পিচ খেজুর,মাল্টা,কমলা,পাকা পেপে,আনারস,তরমুজ এগুলো থেকে মাঝে যেগুলো সুট করবে সেগুলো খেয়ে সলাত আদায় করে সকালে রাখা পান্তাভাত বিটরুট ভাজি,সামুদ্রিক মাছ,পেপে কলা বিভিন্ন রকম সবজি তরকারি যেগুলো সুট করে সেগুলো দিয়ে পান্তা ভাত মজা করে খাবেন।

✅✅আইবিএস রোগীর শেহরীঃ-
গরম ভাত এক প্লেট ২টো দেশী মুরগীর ডিম সাথে সয়াবিন২/৩পিচ দেশী ছোট মুরগীর মাংস দিয়ে রান্না।তরকারি সবজি সহ্যমত।খাবার পর টক দই ১/২চামচ খাবেন।

✅প্রতিটা আইবিএস রোগীর এলার্জি সমস্যা থাকে সেক্ষেত্রে যে খাবারটি খেলে অসস্থিবোধ হয় সেটি বাদ দিবেন।

✅লেখক ও গবেষনায়ঃ-
Dr.Motiur Rahaman(Health Consultant; Organic Health Foundation)
MA,DHMS,DUMS(In Course)
Expert (IBS,IBD,ODS,Pails, Analfiser,Fastula)
WhatsApp(+8801749909662)

উত্তর:প্রশ্নঃআইবিএস কতপ্রকার
উত্তরঃআইবিএস ৩প্রকার।যথা(১)আইবিএস ডি তথা ডায়রিয়া, পাতলা,নরম ও আমাশা যুক্ত পায়খানা হবে।
(২)আইবিএস সি তথা কোষ্ঠকাঠিন্য,বাধাবাধা,অল্প অল্প,আঠালো ও ক্লিয়ার হয় না এমন পায়খানা হবে।
(৩)আইবিএস এম তথা (কষা+ডায়রিয়া) উভয়টি হবে।কখনো কষা কখনো ডায়েরি নরম পাতলা পায়খানা হবে।

উত্তর:আমাদের বৈশিষ্ট্য
✅প্রতিটি রোগীর সমস্যা যত্নসহকারে রেজিষ্ট্রার খাতায় লিখা হয় ও সেভাবে মেডিসিন দেওয়া হয়।
✅ প্রতিটি রোগীকে হোয়াটসঅ্যাপে যুক্ত করা হয় ও ফ্রী কনসালট্যান্ট দেওয়া হয়।
✅প্যাকেজের আওতায় সকল রোগীর পলিপাস ও পাইলসের জন্য ফ্রী মেডিসিন দেওয়া হয়।
✅সরাসরি ডাক্তারের সাথে কথা বলার অনুমতি দেওয়া হয়।
✅দেশ বিদেশে থেকেও আপনি ফ্রী কনসালট্যান্ট নিতে পারবে।

উত্তর:দেখুন আমরা আল্লাহর সৃষ্টিজীব।আমাদের সকল ভালো মন্দ একমাত্র তিনিই নিয়ন্ত্রন করেন।যদি বলি আপনি ভালো হবেন গ্যারান্টি দিচ্ছি আর আল্লাহ যদি মনে করেন বান্দা তোমার কেরামতি দেখাচ্ছি কিভাবে ভালো হয়!আল্লাহ যদি আমাদের প্রতি নারাজ হন তাহলে প্রথিবীর কোন মেডিসিনে,কোন নিয়মে কাজ হবে অপনি বলেন!!সুতরাং আমরা যেহেতু আল্লাহকে বিশ্বাস করি সে কারণে আমরা গ্যারান্টি দেই না।তবে যারা আমদের নিয়মে চলে তারা আলহামদুলিল্লাহ ভালো হবেন বা হচ্ছে  ইনশাল্লাহ।এ কারণে আমরা অনেক স্থানে বলেছি পরিপূর্ণ আমাদের লাইফস্টাইল মানলে আপনি বিনা মেডিসিনে মাত্র ৭-১০দিনে আপনার সমস্যাগুলো কমতে আরম্ভ করবে ইনশাআল্লাহ।নিয়ম শুরু করতে তো আপনার টাকা লাগছে না তাহলে শুরু করতে সমস্যা কোথায়????আপনার কোন নিয়ম বুঝতে সমস্যা হলে আমাদের হোয়াটসএ্যাপ নাম্বারে যোগাগোগ করুন,আমরা আপনোকে সহযোগিতা করব ইনশাআল্লাহ।

উত্তর:জি আসতে পারবেন সমস্যা নাই।সিরিয়াল নিয়ে রাজশাহী সদরেই আমাদের চেম্বার চলে আসবেন।আসার আগে করনীয়,হোয়াটএ্যাপ নাম্বারে নক করলে একটা ফর্ম দেওয়া হবে ।সেটা পুরণ করে দিবেন।এর পর আমরা কিছু ঘরোয়া টিপস দিব ৭-১০দিনের জন্য আপনার সমস্যা বিবেচনা করে।এরপর ভালোমন্দ জানাবেন আসার প্রয়োজন হলে তাহলে আসবেন।ধণ্যবাদ

উত্তরঃনা,এর কোন পাশ্বপ্রতিক্রিয়া নাই।ডায়াবেটিস, প্রেসার,হাটের প্রবলেম,গর্ভবতী মা, ২বছরের শিশুরাও নিরাপদে আইবিএস পাওডার ব্যবহার করতে পারে।তবে জটিল কঠিন রোগ থাকলে আপনি আমাদের পরামর্শ নিয়ে সেবন বিধি জেনে খাবেন।তাতে আপনার সমস্যা নিরাপদ ভাবে চলে যাবে ইনশাআল্লাহ।

অফার নিতে এখনই অর্ডার কনফার্ম করুণ

অফার শেষ হচ্ছে ১০.০৬.২৪

(1)IBS D Pak.একমাসের ফুল কোর্স 2200tk

IBS D Pak.অফার মূল্য 1800tk 1800tk

(2)IBS C Pak.একমাসের ফুল কোর্স 2200tk

IBS C Pak.অফার মূল্য 1800tk 1800tk

(3)IBS M Pak.একমাসের ফুল কোর্স 3000tk

IBS M Pak.অফার মূল্য 2500tk 2500tk

আপনার সমস্যা অনুযায়ী একটি প্যাকেজ নির্বাচন করুন।

IBS D Pak. ডায়রিয়া জনিত আইবিএস
যাদের পুরাতন আইবিএস তাদের জন্য ৩ডোজ
+
1,800.00৳ 
IBS C Pak. কোষ্ঠকাঠিন্য জনিত আইবিএস
যাদের পুরাতন আইবিএস তাদের জন্য ৩ডোজ
+
1,800.00৳ 
IBS M Pak. (ডায়রিয়া+কষা) জনিত আইবিএস
যাদের পুরাতন আইবিএস তাদের জন্য ৩ডোজ
+
2,500.00৳ 

Billing & Shipping

Bangladesh

Your order

Product Subtotal
IBS D Pak.  × 1 1,800.00৳ 
Subtotal 1,800.00৳ 
Shipping
Total 1,800.00৳ 
  • 01. Go to your bKash app or Dial *247#
    02. Choose “Send Money”
    03. Enter below bKash Account Number
    04. Enter total amount
    06. Now enter your bKash Account PIN to confirm the transaction
    07. Copy Transaction ID from payment confirmation message and paste that Transaction ID below bKash "Send Money" fee will be added with net price.

    You need to send us ৳ 1800.00

    Account Type: personal

    Account Number: 01749909662

ফুল পেমেন্ট ছাড়াই অর্ডার করুন

আপনার সমস্যা অনুযায়ী একটি প্যাকেজ নির্বাচন করুন।ফুল পেমেন্ট ছাড়া মাত্র ২০০টাকা সেন্ডমানি করেও অর্ডার কনফার্ম করতে ফোন করুন 01749909662